ভারতে ইভিএমের পরিবর্তে ব্যালট পেপারে ভোটের দাবি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৮ মার্চ ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৩৭
ইলেকট্রনিক ভোটযন্ত্রের (ইভিএম) বদলে আগামীদিনের সব নির্বাচন আগের মতো কাগজের ব্যালটে করার দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। ইভিএম নিয়ে সাধারণ ভোটারের মধ্যে যে আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে, তা দূর করতেই পুরনো ব্যালট পেপারে ফিরে যাওয়ার পক্ষে সওয়াল করেছে কংগ্রেস। নির্বাচন কমিশনের কাছে তারা এমন দাবি জানাতে চলেছে।  শনিবার কংগ্রেসের পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে বলা হয়েছে,  ইভিএমের ব্যাপক অপব্যবহার করা হচ্ছে, যাতে সম্ভাব্য জনমতের উল্টো ফল বেরোয়। এই আশঙ্কা দূর করতেই ব্যালটে ভোট ফের চালু করা দরকার। বেশ কিছুদিন ধরেই দেশটির বিভিন্ন রাজনৈতিক  দলের পক্ষ থেকে নির্বাচনে ইভিএমে কারসাজি করে রায় বদলের অভিযোগ করা হচ্ছে। অবশ্য নির্বাচন কমিশন সবসময় দাবি  করেছে, ইভিএমে কারসাজি করা সম্ভব নয়।
কংগ্রেসের মুখপাত্র টম ভাড্ডাকান বলেছেন,  দেশবাসীর মধ্যে এই ধারনা প্রবল যে, ইভিএমে বিকৃতি ঘটিয়ে ফলাফল এদিক-ওদিক করা যায়। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মিডিয়ার  রিপোর্টও এই আশঙ্কা সমর্থন  করেছে। সুতরাং কংগ্রেসের ব্যালটপত্রে ভোটদানের প্রথা ফেরানোর দাবি নির্বাচন কমিশনের মানা উচিত। এ ব্যাপারে কংগ্রেসের অধিবেশনে যে প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে তাতে বলা হয়েছে, নির্বাচন ব্যবস্থার প্রতি জনসাধারণের আস্থা ফেরানোর জন্য বিশ্বের বড় বড় গণতান্ত্রিক দেশগুলি ফের ব্যালটে ভোটগ্রহণ চালু করেছে। এবার ভারতেও তা হোক। এছাড়া বিজেপির ভারতজুড়ে একসঙ্গে লোকসভা ও বিধানসভা ভোট করানোর উদ্যোগকে ‘ভ্রান্ত পদক্ষেপ’, ‘সংবিধানের সঙ্গে বেমানান’ এবং  ‘অবাস্তব’ বলে আখ্যায়িত করেছে কংগ্রেস।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সিলেটে ৫ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্পন অনুভূত

তিস্তা নিয়ে মমতার সঙ্গে বৈঠকে বসবে আওয়ামী লীগ

নিহত শ্রমিকদের স্মরণ

ইনটেনসিভ কেয়ারে সিনিয়র বুশ

‘কাজের শিল্পীর চাইতে আমাদের বক্তব্যনির্ভর শিল্পীর সংখ্যা বেশি’

দাফনের আগে নড়ে ওঠা নবজাতকটি আর নেই

কানাডায় ফুটপাতের ওপর ভ্যান উঠিয়ে ১০ জনকে হত্যা

রুয়েটের বাস চালককে কুপিয়ে হত্যা

পুলিশি বাধায় পণ্ড বিএনপির বিক্ষোভ

প্লট পাচ্ছেন ৯৯ এমপি

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেক রহমানের লিগ্যাল নোটিশ

তারেক বৃটিশ সরকারের কাছে পাসপোর্ট সমর্পণ করেছেন- পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ওদের এখনো দুর্বিষহ জীবন

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

বিচার কত দূর?

সেনাবাহিনী ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়