ভারতে জাতীয় সঙ্গীতের সংশোধন চেয়ে আরজি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৮ মার্চ ২০১৮, রোববার
ভারতে দেশটির  জাতীয় সঙ্গীতে শব্দ সংশোধনের আরজি জানানো হয়েছে।  এই আরজি জানিয়েছেন আসাম থেকে নির্বাচিত কংগ্রেসের সাংসদ রিপুন বোরা। তিনি সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় এক প্রস্তাবে জাতীয় সঙ্গীতে ‘সিন্ধু’ শব্দের পরিবর্তে ‘উত্তরপূর্ব’ শব্দটি যোগ করার  আরজি জানিয়েছেন । তিনি বলেছেন, সংসদই জাতীয় সঙ্গীতকে গ্রহণ করেছে, তারাই পারে জাতীয় সঙ্গীতে সংশোধন করতে।  রিপুন বোরা তার প্রস্তাবের সমর্থনে বলতে গিয়ে বলেছেন, এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে দেশের জাতীয় সঙ্গীতে ভারতের উত্তর পূর্বের কোনও উল্লেখ নেই। অন্যদিকে, সিন্ধুকে জাতীয় সঙ্গীতের অন্তর্ভুক্ত রাখা হয়েছে, যা বর্তমানে ভারতের অংশ নয়। সিন্ধু বর্তমানে পাকিস্তানের অংশ, যেটি ভারতের শত্রু দেশ। তিনি আরও জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জাতীয় সঙ্গীতে সংশোধনের জন্য অনুরোধ জানানো হবে। এর আগে ২০১৬ সালে শিবসেনা সদস্য অরবিন্দ সাওয়ান্তও এই একই ইস্যু নিয়ে লোকসভাতে সরব হয়েছিলেন। তারও দাবি ছিল, সিন্ধু শব্দের পরিবর্তে অন্য কোনও শব্দ জাতীয় সঙ্গীতে ব্যবহার করা হোক। ১৯১১ সালে নোবেল জয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ‘জনগণ মন অধিনায়ক জয় হে’ সঙ্গীতটি রচনা করেন। তখন ভারত ছিল অবিভক্ত। আর ১৯৫০ সালে গণপরিষদের সভায় রবীন্দ্রনাথের লেখা এই সঙ্গীতটিই দেশের জাতীয় সঙ্গীত হিসাবে গ্রহণ করা হয়। উল্লেখ্য, বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতেরও লেখক রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। 



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Tipu

২০১৮-০৩-২০ ০৯:৩৫:৪৮

বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও পরিবর্তন করতে হবে। বাঙালি মুসলমানের দুশমন ও ব্রিটিশ দালাল রবীন্দ্রনাথের কবিতা আমাদের জাতীয় সংগীত তা ভাবতেই ঘৃণা লাগে।

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ