বেঙ্গালুরুর দায় শোধ করলেন মাহমুদউল্লাহ

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৭ মার্চ ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:২৪
বেঙ্গালুরুতে অবিশ্বাস্য এক ম্যাচ হেরেছিল বাংলাদেশ। ২০১৬’র টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে জয়ের জন্য শেষ তিন বলে প্রয়োজন ছিল ২ রান। হাতে ছিল ৩ উইকেট। সেটা নিতে তো পারেই নি, উল্টো শেষ তিন বলে তিন উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। যেখানে দ্বিতীয় উইকেটটা ছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। মুশফিকুর রহীমের আউটের পর বিলাসী শট খেলতে গিয়ে আউট হয়েই ভিলেন হয়েছিলেন ক্রিকেট ভক্তদের কাছে।
তবে শুক্রবার কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে সেই দায় কিছুটা শোধ করলেন মাহমুদউল্লাহ। এবার ৩ বলে ১২ রান তুলে বাংলাদেশকে দারুণ এক জয় এনে দিয়েছেন তিনি। তাই এটাকে ক্যারিয়ারের সেরা জয় বললেন এ সাইলেন্ট কিলার। শুক্রবার ১৬০ রানের টার্গেটে দলীয় ৩৩ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পরে বাংলাদেশ। এরপর তামিম ইকবাল ও মুশফিকের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানো। কিন্তু এ জুটি ভাঙতেই ছন্দপতন। ১২ রান তুলতেই নেই ৩ উইকেট। সাকিবকে নিয়ে মাহমুদউল্লাহর প্রতিরোধ। কিন্তু আবার ছন্দপতন। এবার ১১ রান তুলতে আউট হন ৩ ব্যাটসম্যান। তখন দলের একমাত্র বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে উইকেটে ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। দল তথা কোটি টাইগার সমর্থকরা তাকিয়ে ছিলো তার দিকেই। এর আগে ২০১২তে এশিয়া কাপের ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে এমন মুহূর্তে উইকেটে ছিলেন দলের শেষ ভরসা হয়ে। কিন্তু পারেননি। পরে ২ রানের হারে স্বপ্নভঙ্গ হয় টাইগারদের। আর ভারতের বিপক্ষে সে হারের স্মৃতিতো এখনও তরতাজা। কিন্তু এবার ঠিকই পেরেছেন মাহমুদউল্লাহ। শেষ চার বলে যখন প্রয়োজন ১২ রান, সেটা করে ফেললেন এক বল হাতে রেখেই। চার, দুই ও ছক্কায়। দারুণ ফিনিশিং। পরে বাঁধভাঙা উল্লাসে মাতেন এ সাইলেন্ট কিলার। এদিন আর নীরবে নয় বলে কয়েই খুন করলেন লঙ্কানদের স্বপ্ন। এমন জয়ের পর মাহমুদউল্লাহ বলেন, এটা আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ইনিংস। যখন সাকিব দলে আসে এটা আমাদের জন্য অনেক বড় প্রেরণার ছিলো। খেলোয়াড়রা ভালো করার জন্য মুখিয়ে ছিল। আমার পরিকল্পনা ছিল বলটা যতটা পারি জোরে মারব। বলটা ভালোভাবে দেখে সে অনুযায়ী মারার চেষ্টা করেছি। শেষ কয়েক ওভারে আমি কিছুটা নার্ভাস ছিলাম। যখন সাকিব এবং আমি উইকেটে ছিলাম এটা সহজ ছিল কিন্তু সাকিব আউট হওয়ার পর আমার উপর চাপ পড়ে যায়। তবে আমাদের বিশ্বাস ছিল আমরা জিতব। নিদাহাস ট্রফিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম লড়াইয়ে ব্যাঙ্গালুরুর হারের দায় মিটিয়েছিলেন মুশফিক। তার অতিমানবীয় এক ইনিংসে রেকর্ড গড়েই জয় তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশ। আর দ্বিতীয় লড়াইয়ে দায় মেটালেন মাহমুদউল্লাহ। তবে এখনও বাকি রয়েছে বড় বাধা। কারণ সেটা ছিল বিশ্বকাপের ম্যাচ। আর প্রতিপক্ষ ছিল ভারত। তাদেরই আবার ফাইনালে পাচ্ছে টাইগাররা। তাই ফাইনালে এমন কিছু করতে পারলেই যে সত্যিকারের দায়মোচন হবে মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাসে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা : চালকসহ তিনজন আটক

বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করলেন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী

মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে আটক

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে আইনি নোটিশ তারেকের

কাঠমান্ডুর পথে বাংলাদেশের দুটি বাস

স্ত্রীর মামলায় মডেল আসিফ কারাগারে

‘সেনাবাহিনী ছাড়া এখন যেকোন নির্বাচন সুষ্ঠু করা অসম্ভব’

বিল্লাল হত্যায় ১৩ জনের ফাঁসির আদেশ

হোঁচট খেলেন মিট রমনি

নড়ে-চড়ে উঠল মৃত নবজাতক!

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে

পাতায়ায় সেক্স পার্টি

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর চিঠি পেয়ে আপ্লুত সেঁজুতি

রাজস্থানে ৩৩ বাংলাদেশী গ্রেপ্তার

খাদ্যে ঢুকে পড়ছে প্লাস্টিক, বিপদের মুখে বাংলাদেশ