নাগরিকের ভাবনায় পরিবর্তন আনতে সহযোগিতা চান সাঈদ খোকন

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ মার্চ ২০১৮, বুধবার, ৩:১৩ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৩৪
শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে ও নাগরিকের ভাবনায় পরিবর্তন আনতে পঞ্চায়েত প্রধান ও ইমামদের আহবান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিন সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)র মেয়র সাঈদ  খোকন। তিনি বলেন, আমি তিন বছর ধরে বলছি। আরও বললেও হবে না। কিন্তু আপনারা শুধু একবার বলেন, নাগরিকরা অবশ্যই শুনবে। আপনারাই পারেন নাগরিকের ভাবনায় স্বচ্ছতার পরিবর্তন আনতে। আজ বুধবার অফিসার্স ক্লাবে অনুষ্ঠিত এক মত বিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি। 'স্বচ্ছ ঢাকা' কর্মসূচি বাস্তবায়নে ডিএসসিসির বিভিন্নি ওয়ার্ড পঞ্চায়েত কমিটির প্রধান ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সপ্তাহব্যাপী পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালাবে ডিএসসিসি।
এ অভিযান সফলের লক্ষ্যেই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, নিজের ঘরের মত শহরকেও নিজের ভাবতে হবে। যতœশীল হতে হবে। তবেই পরিচ্ছন্ন নগর হবে। তিনি আরো বলেন, এখন প্রায় শতভাগ রাস্তায় এলইডির আলো জ্বলে। ৮৫ ভাগ রাস্তা চলাচলের উপযোগী। আগামী শুষ্ক মৌসুমের আগেই ৯৯ ভাগ রাস্তা চলাচলের উপযোগী হবে। সভায় পঞ্চায়েত প্রধানরা জানান, তাদের কার্যক্রম ভাড়া দোকান কিংবা ভাড়া বাড়িতে পরিচালিত হচ্ছে। এজন্য ডিএসসিসি থেকে সুনির্দিষ্ট জায়গা বরাদ্ধ চান তারা। সভায় ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী খান মোহাম্মদ বিল্লাল, প্রধান বর্জ্য কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম ও প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি. সালাহউদ্দিনসহ ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পঞ্চায়েত প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শাহাবুদ্দিন ফারুকী

২০১৮-০৩-১৪ ১৬:১৫:২৬

মাননীয় মেয়র মহদয়, আমাদের শহর পরিচ্ছন্ন রাখতে আপনার 'স্বচ্ছ ঢাকা' কর্মসূচীর প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানাই। আপনি যথাযতই বলেছেন যে- "আমাদের ভাবনায় স্বচ্ছতার পরিবর্তন আনতে হবে"। এ ব্যাপারে জাতির জনকের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সপ্তাহব্যাপী পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা সার্থক হোক সে কামনা করি। এটি নাগরিকের সচেতনতা , দৃষ্টিভঙ্গি এবং ভাবনায় ইতিবাচক পরিবর্তন আনবে আশা করি। আপনার 'স্বচ্ছ ঢাকা' কর্মসূচীর আবেদন টেকসই করতে ডিসিসি দ্বারা কিছু নির্দেশনা প্রস্তাব করছি, যা নিয়মিত কাম্পেইনের মাধ্যমে চালিয়ে যেতে হবে। - রাস্তায়, পার্কে বা যত্রতত্র বর্জ্য বা আবর্জনা ফেলতে বারণ। - আবর্জনা ফেলবার নির্ধারিত জায়গা যতক্ষণ খুঁজে না পান, এটি সাথে রাখুন। - কাউকে রাস্তায় পার্কে বা যত্রতত্র বর্জ্য বা আবর্জনা ফেলতে দেখা গেলে তাঁকে জরিমানা করুন। - যার বাড়ি বা স্থাপনার সামনে বর্জ্য বা আবর্জনা পাওয়া যাবে, তিনি তা পরিস্কারের জন্য দায়ী থাকবেন। - আপনার বাড়ি বা স্থাপনার সামনে অন্য কেউ যেন বর্জ্য বা আবর্জনা ফেলতে না পারে, সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। - নিজের ঘরের মত শহরকেও নিজের ভাবুন। - আমার শহর স্বচ্ছ রাখি যেমন আমার ঘর। - সবাই মিলে বাজনা বাজাই, স্বচ্ছ ঢাকা শহর সাজাই। - প্রানের শহর ঢাকা আজ, স্বচ্ছ রাখা আমার কাজ। - ভাবনা আমার ঢাকা, স্বচ্ছ সবূজ রাখা।

আপনার মতামত দিন

কেউ বলতে পারবে না কারো গলা টিপে ধরেছি, বাধা দিয়েছি

মেজর মান্নান স্বাধীনতাবিরোধী - মহিউদ্দিন আহমদ

কেন আমাকে হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে না?

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের প্রাথমিক তদন্ত শুরু আইসিসি’র

ভারতের বড় জয়

নওয়াজ মুক্ত, সাজা স্থগিত

সামনে আফগানিস্তান, সূচি নিয়ে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ

ঘণ্টায় দুজন ডেঙ্গু রোগী

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার

ড. কামালের সঙ্গে জোনায়েদ সাকির বৈঠক

খালেদার মুক্তির দাবিতে কর্মসূচি আসছে

মানবসেবার ব্রতই লোটে শেরিংকে তুলেছে এ পর্যায়ে

৫ দিনের রিমান্ডে হাবিব-উন নবী সোহেল

দেশে-বিদেশে শহিদুল আলমের মুক্তি দাবি

শুল্ক বাধা দূর হলে দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের বাণিজ্য দ্বিগুণ করা সম্ভব-বিশ্বব্যাংক

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের অস্ত্রের মহড়া