মেহেদির রঙ শুকানোর আগেই নিভে গেল দু’টি প্রাণ

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ মার্চ ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫০
মিনহাজ ও আঁখিমণি দম্পতি। মাত্র ১৩ দিন আগে বিয়ের সানাই বেজেছিল তাদের। হাতের মেহেদির রঙ এখনো শুকোয়নি। বিয়ের আংটিও হাত থেকে খোলেনি। কিন্তু এরই মধ্যে প্রাণ প্রদীপ নিভে গেলো এই দম্পতির। গত ২৭শে ফেব্রুয়ারি গায়ে হলুদ এবং ৩রা মার্চ বিয়ে হয়েছিল মিনহাজ ও আঁখিমণির।
সোমবার দুপুরে হানিমুনের জন্য তারা নেপালের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পরিবারের কাছ থেকে দোয়া চেয়ে বিদায়ও নেন। এরপরে ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দরের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানে উঠেন। নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরেও পৌঁছান। কিন্তু অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। বিমানের ভিতরেই দগ্ধ হয়ে নিহত হন এ নব দম্পতি। নিহত মিনহাজের খালাতো বোন তাশমিনা খালেদ জানান, মিনহাজের বাসা রাজধানীর মহাখালীতে। তার বাবা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিন। জাঁকজমকপূর্ণ বিয়ের অনুষ্ঠানের পর পরিবারের উদ্যোগে তাদেরকে নেপালে হানিমুনে পাঠানো হয়েছিল।
তাশমিনা জানান, কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর আঁখি ও মিনহাজের মোবাইল ফোন থেকেই দেশে তাদের মৃত্যুর খবর আসে। বর্তমানে কাঠমান্ডুর হাসপাতালের মর্গে এ নবদম্পতির লাশ রয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

৪ মিনিটে মিশরের জালে আরো ২ গোল রাশিয়ার

প্রচারণায় কেন্দ্রীয় নেতারা উত্তেজনা বাড়ছে

গ্যালারিতে অন্য আকর্ষণ

উছিলা বিশ্বকাপ উদ্দেশ্য ভিন্ন

নারী নির্যাতন মামলায় কম সাজার নেপথ্যে

খালেদার চিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ কাল

বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান সুলতান মনসুরের

রোহিঙ্গা নেতাকে গলা কেটে হত্যা

বিশুদ্ধ পানি স্যানিটেশন ও খাদ্য সংকট চরমে

জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডে বরাদ্দযোগ্য অর্থ নেই

খুলনায় আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ওপর হামলা, নোয়াখালীতে সংঘর্ষ

নোয়াখালীতে প্রবাসী খুন, ৬ মাসেও গ্রেপ্তার হয়নি আসামি

ফাঁকা ঢাকায় ছিনতাই আতঙ্ক

ওয়ান ইলেভেনের কুশীলবদের নিয়ে বিএনপি এবার সক্রিয়

সাগর-রুনি হত্যা রহস্য উদঘাটন কত দূর?

সাবেক ইসরাইলি মন্ত্রী ইরানের গুপ্তচর?