বাউফলে বোনের সামনে ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

বাংলারজমিন

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | ১৩ মার্চ ২০১৮, মঙ্গলবার
বাউফলে রাতের আঁধারে সিঁদ কেটে ঘরে প্রবেশ করে বোনের সামনে ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার গভীর রাতে মদনপুরা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামে ঘটে এ ঘটনা। দুর্বৃত্তদের আঘাতে আহত রীনা বেগমকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের রাজা খানের ঘরের দক্ষিণ পাশ দিয়ে সিঁদ কেটে ঘরে ৪/৫ জন দুর্বৃত্ত প্রবেশ করে। এ সময়ে রাজা খানের মেয়ে রীনা বেগম (২৮) ঘরের ভেতর দুর্বৃত্তদের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাক-চিৎকারের চেষ্টা চালালে দুর্বৃত্তরা তার মাথায় ও দুই হাতে আঘাত করে জখম করে। এরপর তার মুখে কাপড় ঢুকিয়ে হাত-পা খাটের সাঙ্গে বেঁধে রাখে। এ সময়ে ঘরের সামনের রুমে ঘুমিয়ে থাকা তার ভাই আবুল কালাম খান (৪০) বোনের সঙ্গে দুর্বৃত্তদের ধস্তাধস্তির শব্দ শুনে বোনকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে আবুল কালামের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ওই রাতে বাড়িতে আবুল কালাম খান ও তার বোন রীনা বেগম ছাড়া অন্য কেই ছিল না। গতকাল সকালে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠায়।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারুক হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনাটি চুরি বা ডাকাতি মনে হচ্ছে না। পূর্ব বিরোধের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটাতে পারে। আহত রীনা বেগমের অবস্থার উন্নতি হলে তার জবানবন্দি নিয়ে ঘটনার আসল রহস্য বের করা হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বরিশালে ঘাতক বাসচালক জলিল গ্রেপ্তার

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে আমিরাতের ‘সালাম’

পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ২৫ শিক্ষার্থী হাসপাতালে

হবিগঞ্জে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

ছবিতে আল নূর মসজিদে নামাজ, স্মরণসভা

মোদির অভিনন্দনকে স্বাগত জানিয়েছেন ইমরান খান

গাজীপুরে আওয়ামী লীগের ৩২ নেতাকর্মী আটক

চীনে পর্যটকবাহী বাসে আগুন, নিহত ২৬

শাহজালালে ওয়াশরুমের ঝুঁড়িতে ৮ কোটি টাকার স্বর্ণ

খালেদা জিয়ার অসুস্থতায় উদ্বিগ্ন, সুচিকিৎসার দাবি ১০১ চিকিৎসকের

নিউজিল্যান্ডে ভালবাসার পদযাত্রা

‘এখনো অনেক কিছু করার বাকি আছে’

পদ হারালেন জিএম কাদের

আলোচনায় রাতের ভোট

গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলার নেপথ্যে

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন মেনন, লাইসেন্স ছিল না চালকের