দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ

এবার মুখোশ কাণ্ডে তোলপাড়

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১১ মার্চ ২০১৮, রোববার
এবার ওয়ার্নার- কুইন্টন ডি ককের ঘটনায় উদ্ভূত মুখোশ কাণ্ডের জন্য অজি বোর্ড (সিএ) ও খেলোয়াড়দের কাছে ক্ষমা চাইলো দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ)। ডারবান টেস্টের চতুর্থ দিনে কিংসমিড মাঠের খেলোয়াড় টানেলে দ্বন্দ্বে জড়ান অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক। এ সময় ডি ককের দিকে তেড়ে যান ক্ষিপ্ত ওয়ার্নার। ওই ঘটনার জন্য ম্যাচ ফির ৭৫% জরিমানা ও ৩ ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের এই সহ-অধিনায়ক। তবে ঘটনা থামেনি সেখানে। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার সমর্থকরা পোর্ট এলিজাবেথের সেইন্ট জর্জেস পার্ক মাঠে হাজির হন চেহারায় মুখোশ পরে। আর এমন মুখোশ পরা সমর্থকদের সঙ্গে ক্যামেরা বন্দি হন প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ডের দুই কর্মকর্তা ক্লাইভ এক্সটিন ও আলতাফ কাজী। এতেই বাড়ে বিপত্তি।
ওই ছবি ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এ নিয়ে গতকাল প্রতিবাদমুখর প্রতিবেদন ছাপে অজি শীর্ষ দৈনিক সিডনি মর্নিং হেরাল্ড। আর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছে ক্ষমা চান সিএসএ সভাপতি ক্রিস নেনজানি। ওটা কার মুখোশ? আসলে ডেভিড ওয়ার্নারকে বিদ্রূপ করে এ মুখোশ পরে মাঠে হাজির হয় প্রোটিয়া সমর্থকরা। মুখোশটা সনি বিল উইলিয়ামসের। ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে পরিচয়ের আগে স্ত্রী ক্যানডিসের সম্পর্ক ছিল বিল উইলিয়ামসের সঙ্গে। পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের প্রথমদিনে এমন মুখোশধারী দর্শকদের শুরুতে স্টেডিয়ামের দরজায় আটকে দেয়া হয়েছিল। পরে শীর্ষ কর্মকর্তা ক্লাইভ এক্সটিন ও আলতাফ কাজীর নির্দেশে গ্যালারিতে ঢুকতে দেয়া হয় তাদের।
আর স্টেডিয়ামে প্রবেশকালে এ দর্শকরা ছবি তোলেন এক্সটিন-আলতাফের সঙ্গে। ঘটনার জন্য প্রোটিয়া বোর্ডের হেড অব কমার্শিয়াল কর্মকর্তা এক্সটিন ও হেড অব মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন আলতাফ কাজী তদন্তের মুখে রয়েছেন। গতকাল আলতাফ কাজী বলেন, এটা ছিল আমার জীবনের অন্যতম বাজে এক সিদ্ধান্ত। এ জন্য আমি দুঃখিত। স্টেডিয়ামের দরজায় ভিড় করেছিল ওই দর্শকরা। তখন তারা আমাদের (কাজী ও এক্সটিন) নজর কাড়ে। এবং নিরাপত্তার খাতিরে আমরা তাদের ভেতরে ঢুকতে দেই। এ সময় তারা আমাদের সঙ্গে ছবি তুলতে চায়। ডারবানের ঘটনায় ওয়ার্নার বলেন, ওই সময় ডি কক তার স্ত্রীকে নিয়ে বাজে বকেছিল। পরে আইসিসির শুনানিতে ডি ককও স্বীকার করেন বিষয়টি। এজন্য ম্যাচ ফির ১৫% জরিমানা ও ১ ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া হয় ডি কককেও। গতকাল এক বিবৃতিতে প্রোটিয়া বোর্ড সভাপতি ক্রিস নেনজানি বলেন, সিএসএ’র পক্ষ থেকে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড, এর কর্মকর্তা, টিম ম্যানেজমেন্ট, খেলোয়াড় ও তাদের পরিবারের কাছে ক্ষমা চাইছি আমি। বিবৃতিতে বলা হয়, সমর্থকদের অধিকারের প্রতিও সম্মান রয়েছে আমাদের। তবে সমর্থকদের বর্ণবাদী, লিঙ্গ বিদ্বেষী, অবমাননা ও অরুচিকর কোনো আচরণ সহ্য করা হবে না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

স্থায়ী কমিটির বৈঠকে জাতীয় ঐক্যের পর্যালোচনা করেছে বিএনপি

ভারতের কাছে পাত্তাই পেল না পাকিস্তান

ঐক্যের কর্মসূচি পর্যবেক্ষণ করছে আওয়ামী লীগ

ইতিবাচক অগ্রগতি দেখছে বিএনপি

সুধীজনদের সঙ্গে বৈঠকে বসছে ঐক্যপ্রক্রিয়া

কাল্পনিক মামলার তদন্তে কমিশন চেয়ে হাইকোর্টে রিট

আফগানদের বিপক্ষে লড়াকু ব্যাটিং

ঐক্য ভাঙবে না আরো অনেকে যুক্ত হবে

গাজীপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ অবরোধ, পুলিশের লাঠিচার্জ, টিয়ার শেল

বাবা ডেকেও রেহাই মেলেনি লুৎফার

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি ড. কামালের

আওয়ামী লীগের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না

বাড়ছে হৃদরোগ, আক্রান্ত হচ্ছে যুবকরাও

দুই বন্দরে ঘুষ ছাড়া সেবা মেলে না

কথিত বাংলাদেশি অভিবাসীদের ‘উইপোকা’ বললেন অমিত শাহ

সংঘাত এড়াতে চট্টগ্রাম কলেজের নিয়ন্ত্রণ নিল পুলিশ