বেয়ারস্টো ঝড়ে বিধ্বস্ত নিউজিল্যান্ড

সিরিজ জয়ে ডাবল হ্যাটট্রিক ইংলিশদের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১১ মার্চ ২০১৮, রোববার
রেকর্ডগড়ে সমতা ফেরালেও সিরিজ জেতা হলো না নিউজিল্যান্ডের। গতকাল পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডে জিতে সিরিজ জিতে নেয় ইংলিশরা। জনি বেয়ারস্টোর ঝড়ো সেঞ্চুরি কিউইদের ৭ উইকেটে হার মানতে বাধ্য করে ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচ সিরিজ ৩-২ ব্যবধানে জিতলো তারা। আর এতে ওয়ানডেতে টানা ছয়টি সিরিজ জিতলো ইংল্যান্ড। সর্বশেষ জানুয়ারিতে অজিদের বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় করে তারা। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৩-০, আয়ারল্যান্ডকে ২-০, আফগানিস্তানকে ২-১ এবং ঘরের মাঠে ফের ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪-০ ব্যবধানে হারানোর স্মৃতি রয়েছে মরগান-রুটদের। ইংল্যান্ড ওয়ানডেতে শেষ সিরিজ হারে গত বছরের শুরুর দিকে ভারতের কাছে ২-১ ব্যবধানে।
রস টেইলরের অভাবটা ভালোই টের পায় কিউইরা।
ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি আগের ম্যাচে ১৮১ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলা রস টেইলর। ক্রাইস্টচার্চের হেগলি ওভাল মাঠে গতকাল টস জিতে নিউজিল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠান ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগান। ৪৯.৫ ওভারে ২২৩ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। জবাবে ১০৪ বল হাতে রেখে ৩ উইকেট হারিয়ে সহজে জয়ের বন্দরে পৌঁছে ইংলিশরা। ২২৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই কিউই বোলারদের উপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে ইংলিশ ওপেনাররা। ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ৫৮ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন। ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের হয়ে তৃতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড এটি। আর ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটা বেয়ারস্টোর চতুর্থ সেঞ্চুরি। আগের খেলাতেই ডানেডিনে তিনি ১৩৮ রান করলেও তার দল হেরে যায়। মাত্র ২০.১ ওভারে উদ্বোধনী জুটিতে ১৫৫ রান যোগ করেন ইংলিশ ওপেনাররা। ৬০ বলে ৬ ছক্কা ও ৯ চারে ব্যক্তিগত ১০৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন বেয়ারস্টো। আরেক ওপেনার অ্যালেক্স হেলস ৬১ রান করে আউট হন। গত সেপ্টেম্বরের পর ইংলিশদের হয়ে প্রথমবার ব্যাট হাতে নামেন তিনি। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটা তার ১২তম ফিফটি। শেষ পর্যন্ত ৩ উইকেট হারিয়ে ৩২.৪ ওভারে সহজ জয় পায় ইংল্যান্ড।
প্রথমে ব্যাট করতে নামা নিউজিল্যান্ড ৯৩ রান তুলতেই টপঅর্ডারের ৬ ব্যাটসম্যানকে হারায়। পরে হেনরি নিকোলস ও বোলিং অলরাউন্ডার মিচেল স্যান্টনার সপ্তম উইকেটে ৮৪ রানের জুটি গড়ে দলকে ২০০ রানের কাছাকাছি নিয়ে যায়। দলীয় ১৭৭ রানের মাথায় ৫৫ রান করে নিকোলস ফিরলেও কিউইদের ব্যাটিং একপ্রান্তে আগলে রাখেন স্যান্টনার। পরে ৭১ বলে ২ ছক্কা ও ৪ চারে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৬৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই বাঁহাতি। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটা তার দ্বিতীয় ফিফটি। শেষ পর্যন্ত এক বল বাকি থাকতে ২২৩ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড।
ইংল্যান্ডের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন পেসার ক্রিস ওকস ও স্পিনার আদিল রশিদ। দুই উইকেট নেন আরেক পেসার টম কুরান। ম্যাচসেরার পুরস্কার ওঠে বেয়ারস্টোর হাতে। আর ৫ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সিরিজসেরা তারই সতীর্থ পেসার ওকস। ওয়ানডের পর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড। ২২শে মার্চ হ্যামিল্টনে শুরু হবে প্রথম টেস্ট।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
টস: ইংল্যান্ড (ফিল্ডিং)
নিউজিল্যান্ড: ৪৯.৫ ওভার; ২২৩ অলআউট (স্যান্টনার ৬৭, নিকোলস ৫৫, ওকস ৩/৩২, রশিদ ৩/৪২)
ইংল্যান্ড: ৩২.৪ ওভার; ২২৯/৩ (বেয়ারস্টো ১০৪, হেলস ৬১)
ফল: ইংল্যান্ড ৭ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা: জনি বেয়ারস্টো (ইংল্যান্ড)
সিরিজসেরা: ক্রিস ওকস (ইংল্যান্ড)



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পদ হারালেন জিএম কাদের

গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলার নেপথ্যে

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন মেনন, লাইসেন্স ছিল না চালকের

পতাকা উত্তোলন দিবস আজ

ওয়াশিংটনে মোমেন-পম্পেও বৈঠক ১০ই এপ্রিল

ইন্টারনেটে ব্ল্যাকমেইল

বরিশালে দুর্ঘটনায় মা-ছেলেসহ নিহত ৭

ডাকসুর নেতৃত্ব দেবেন নুর, থাকবেন আন্দোলনেও

ঐক্যফ্রন্টের কর্মী সমাবেশ এপ্রিলে

দুই মিনিট স্তব্ধ নিউজিল্যান্ড, সংহতি অস্ট্রেলিয়ারও

বিমানবন্দরে অস্ত্রসহ আওয়ামী লীগ নেতা আটক

বিয়ের পিঁড়িতে ‘কাটার মাস্টার’ মোস্তাফিজ

যক্ষ্মা: ২৬ শতাংশ রোগী শনাক্তের বাইরে

ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ীসহ নিহত ৩

দর্শকশূন্যতার বড় কারণ হলের বাজে পরিবেশ