ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব !

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৪ মার্চ ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ২:০৫
ত্রিপুরায় পরিবর্তনের অন্যতম কান্ডারি রাজ্য বিজেপির সভাপতি তরুন বিপ্লব দেব। স্বাভাবিকভাবেই আলোচনা শুরু হয়েছে কে হচ্ছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী ? সূত্রের খবর, এক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছেন দলের রাজ্য সভাপতি বিপ্লব দেব। দিল্লির ৪৮ বছরের এই তরুণ নেতাকে ত্রিপুরার সভাপতি করে সব দায়িত্ব তুলে দিয়েছিলেন দলের শীর্ষ নেতারা। বিপ্লব  দেবের জন্ম দক্ষিণ ত্রিপুরার উয়দপুর মহকুমায়। দিল্লিতে তাঁর উচ্চশিক্ষা। জীবনের একটা বড় অংশ তিনি কাটিয়েছেন নাগপুরে আরএসএসের কার্যালয়ে।
এবারই প্রথম বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি। দলের সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব জানিয়েছেন, বিজেপির সংসদীয় পর্ষদের বৈঠকে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। বিজেপির সংসদীয় পর্ষদে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, পরিবহণ মন্ত্রী নীতীন গড়গড়িসহ দলের অন্য শীর্ষ  নেতারা। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বিপ্লব দেবের নাম ঘোরাফেরা করছিল আগে থেকেই। ভোটগ্রহণের আগে জনমত সমীক্ষায় মানিক সরকারের থেকে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন বিপ্লব। দিল্লিতে থাকাকালীন বিপ্লব স্থানীয় জিম ইনস্ট্রাক্টরের কাজও করেছেন। রাষ্ট্রীয় স্বয়মসেবক সংঘ (আরএসএস)-এর স্বেচ্ছাসেবক ছিলেন বিপ্লব। আরএসএসে বিল্পবের প্রশিক্ষক ছিলেন সুনীল  দেওধর, যিনি ত্রিপুরায় বিজেপির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ছিলেন। তার মেন্টর ছিলেন কে এন  গোবিন্দচার্য। ১৫ বছর পর তিনি ত্রিপুরায় ফিরে আসেন। ২০১৬ সালে সুধীন্দ্র দাশগুপ্তকে সরিয়ে তাঁকে রাজ্য সভাপতি করে বিজেপি। মাত্র ২ বছরেই ত্রিপুরায় দলের পারফরম্যান্সকে অপ্রত্যাশিত উচ্চতায় নিয়ে যেতে সাহায্য করেছেন বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সোনা কারসাজির নিরপেক্ষ তদন্ত চায় ফিনল্যান্ড বিএনপি

চবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানবন্ধনেও ছাত্রলীগের হামলা!

রিমান্ডে আসাদ পংপং

ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা দেখতে চায় ইইউ

ঢাকায় সর্বোচ্চ গরম

দেশের বাইরে পাসের হার ৯২ দশমিক ২৮ শতাংশ

জাবিতে ১৯ বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন

আবারও বড় ঋণ কেলেঙ্কারিতে জনতা ব্যাংক

বিবি’র ওপর ‘আস্থা’ রাখুন!

হুমায়ূন আহমেদের শেষের দিনগুলো

দিনাজপুরে ছেলেরা পিছিয়ে

আরিফকে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন সেলিম

যশোর বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বললেন বিপর্যয় নয়, কম পাস

ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ২০ থেকে ২৬ জুলাই

গতানুগতিক পড়ালেখায় ভাল ফল সম্ভব নয়

পাকিস্তানের নির্বাচনে দৃষ্টি সেনাবাহিনীর!