বিজেপি ঠেকাতে রাহুল গান্ধীকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন মমতা

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৪ মার্চ ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ২:২৪
ত্রিপুরার নির্বাচনে বিপুল সাফল্যে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতারাও উচ্ছ্বসিত। ওদিকে, ত্রিপুরায় সিপিআইএমের হারের কথা আগেই টের পেয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি বিধানসভায় দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, সিপিআইএমের অহঙ্কারই পতনের কারণ। তবে এসব বলেও ত্রিপুরার বিধানসভা নির্বাচনে এক শতাংশও ভোট পায়নি তৃণমূল কংগ্রেস। একইভাবে কংগ্রেসের দখলে এসেছে মাত্র কয়েক শতাংশ ভোট। তবে শনিবার কলকাতায় নবান্ন সচিবালয়ে ত্রিপুরার ফল নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বিজেপিকে ঠেকাতে রাহুল গান্ধীকে তিনি জোটের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তিনি বলেছেন, রাহুলকে বলেছিলাম আমাদের সঙ্গে থাকুন।  একসঙ্গে লড়াই করি। এমনকি, আসন নিয়েও রফা করতে চেয়েছিলাম।
কিন্তু রাহুল সেই প্রস্তাব মানে নি। আর তাই বিজেপি অক্সিজেন পেয়ে গিয়েছে।  ত্রিপুরার ফল নিয়ে মমতা এদিন বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেছেন,  নির্বাচনে কোটি কোটি টাকা ঢালা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ইভিএমেও কারচুপি করা হয়েছে। দেশের বাহিনীকেও ভোটের কাজে লাগানো হয়েছে বলে মমতা অভিযোগ করেছেন। মমতার মতে, বিজেপির কাছে আত্মসমর্পণ করেছে সিপিএম। আর তাই  ত্রিপুরাবাসীকে বিজেপির হাত থেকে বাঁচাতে আগামী দিনে সেখানে তৃণমূল কংগ্রেস নতুন করে কাজ শুরু করবে বলে জানিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী। সেই সঙ্গে মমতা বলেছেন, ত্রিপুরার জয়ে যারা বাংলাতেও বিজেপির জয় নিয়ে আশাবাদী তাদের আশা কখনই পূরণ হবে না । আর তাই রাজ্যের বিজেপি নেতারা ত্রিপুরা মডেলে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে লড়াই করবেন বলে স্থির করেছেন। বিজেপি নেতাদের মতে, সিপিআইএমের ছাপ্পা রুখেই মানিক রথ থামিয়ে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। এবার একই কায়দায় বঙ্গের মাটিতেও ঘাসফুলের উচ্ছেদ ঘটিয়ে ক্ষমতা দখলের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতারা। শনিবার সন্ধ্যায় বিজেপি-র মহিলা মোর্চার সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে ত্রিপুরা মডেলেই পশ্চিমবঙ্গে ভোট হবে। তখনই পরিষ্কার হয়ে যাবে মানুষ ওদের (তৃণমূল কংগ্রেসের) সঙ্গে আছে কি না। বিজেপি নেত্রীর দাবি, ছাপ্পা রুখে দিলেই এই বঙ্গে তৃণমূলের বাড়বাড়ন্ত রুখে দেওয়া সম্ভব। ত্রিপুরার কায়দাতে এখানেও তারা বুথ ম্যানেজমেন্ট করবেন বলে জানিয়েছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘মিয়ানমারে হস্তক্ষেপের কোনোই অধিকার নেই জাতিসংঘের’

‘জনগণের কাছে ক্ষমা চাইলে আওয়ামী লীগের সঙ্গে ঐক্য হতে পারে’

আদালতের প্রতি দুই আসামীর অনাস্থা একজনের জামিন বাতিল

২৭শে সেপ্টেম্বর বিএনপির জনসভার ঘোষণা

আপিলেও বৃটিশ যুবতীর জেল বহাল

বাংলাদেশের ইতিহাসে যেখানে মাশরাফিই প্রথম

বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাড়ি, আছে ৩টি হেলিপ্যাড, সিনেমা হল, ৬০০ কাজের লোক (ভিডিও)

‘সরকার উৎখাতে দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে’

‘বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য’ টিকবে না

ছেলের দুধ কিনতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন বাবা

‘গাড়িপ্রস্তুতকারক প্রোটন সফল ছিল’

চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে আওয়ামী লীগ নেত্রী নিহত

কথিত অবৈধ বাংলাদেশীদের উইপোকা বলে অমিত শাহ ভারতের ক্ষতি করছেন

রাজধানীসহ সারাদেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

মিয়ানমারের দাবি তালিকায় ৫০ সন্ত্রাসীর নাম, ফেরত পাঠানোর আহ্বান

‘আমি কচ্ছপ গতিতে চলতে পছন্দ করি’