তবুও বাংলাদেশের পক্ষে বাজি সঞ্জয়ের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৭
সদ্য নিজ মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ফরমেটের ক্রিকেটেই সিরিজ হার দেখেছে বাংলাদেশ। তবে শ্রীলঙ্কার মাটিতে আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজে স্বাগতিকদের চেয়ে বাংলাদেশকে ফেভারিট মানছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার সঞ্জয় মাঞ্জরেকার। ক্রিকেটের বোদ্ধা-বিশ্লেষক মাঞ্জরেকার বলেন, ‘ভারতের পর সিরিজের দ্বিতীয় শক্তিধর দল বাংলাদেশ’। টাইগারদের জন্য পরামর্শও রেখেছেন ভারতের ক্যাপ মাথায় ৩৭ টেস্ট ও ৭৪ ওয়ানডের তারকা সঞ্জয় মাঞ্জরেকার। আর মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ফের বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্বে দেখতে চান তিনি।  আগামী ৬ই মার্চ শ্রীলঙ্কা-ভারত ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি আসর নিদাহাস ট্রফির। সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আগামী ৮ই মার্চ ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।
আর সিরিজ সামনে রেখে ভারতীয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া-এর কলামে সঞ্জয় মাঞ্জরেকার লিখেছেন, ক্রিকেটের সবচেয়ে বেশি দর্শক ভারতে। আর নিদাহাস ট্রফি বাংলাদেশের জন্য নিজেদের তুলে ধরার আরেকটি সুযোগ। বাংলাদেশ দল ধীরে ধীরে শক্তিধর হয়ে উঠেছে। এখন তাদের শারীরিক সক্ষমতা, ফিটনেস ও আত্মবিশ্বাস বাড়াতে হবে। ভিন দেশের মাটিতে নিজেদের প্রমাণ করতে এখনো অনেক কিছু করতে হবে তাদের। তবে এমন প্রসঙ্গে ভারতও ব্যতিক্রম নয়। আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজে ভারতের পর বাংলাদেশকে দ্বিতীয় শক্তিধর দল মনে করি আমি। সাকিব ও মোস্তাফিজ বিশ্বমানের ক্রিকেটার। তারা যে কোনো মুহূর্তে ম্যাচের চেহারা বদলে দিতে সক্ষম। শুধু তারাই নয়, ফর্মে থাকলে ব্যাট হাতে তামিম ইকবালও ‘বিশেষ’ খেলোয়াড় হয়ে উঠতে পারে যে কোনো ম্যাচে। বাংলাদেশের ক্রিকেটের উত্থানে দর্শক-সমর্থকের ভূমিকাকেও বড় করে দেখেন মাঞ্জরেকার- ‘বাংলাদেশের উঠে আসাটা ক্রিকেটের জন্য সুখবর। সেখানে ক্রিকেটটা খুবই জনপ্রিয় খেলা। সত্যি বললে, ভারতের চেয়েও বেশি। বাংলাদেশ বর্তমানে এক-খেলার দেশ। এক সময় ভারত যেমন ছিল। নিজ দেশে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা মহাতারকা। ঢাকায় নিয়মিত চোখে পড়ে ক্রিকেটারদের ছবি আঁকা বিশাল বিজ্ঞাপনী বিলবোর্ড।
খেলাটিতে তরুণদের আকৃষ্ট করতে এটা বড় অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে। কোনো প্রথাসিদ্ধ ক্রিকেট একাডেমিও যা পারে না। কারণ এটি মূলত একটি দরিদ্র দেশ, সহজ-সাধারণ লাখো শিশু-কিশোর পেশা হিসেবে ক্রিকেটের স্বপ্ন দেখে, তাদের আইডল সাকিব মোস্তাফিজের মতো নাম, যশ ও অর্থ উপার্জন করতে চায়। গত বছর ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কা সফরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন অধিনায়ক  মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে দু’দিন আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান বলেন, অবসর ভেঙে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফিরতে চাইলে মাশরাফিকে স্বাগতম জানাবে বিসিবি। যদিও এমন সম্ভাবনা নাকচ করেন স্বয়ং মাশরাফি। আর  সঞ্জয় মাঞ্জরেকার তার কলামে লিখেছেন, আশা করা যায় মাশরাফি মুর্তজা বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্বে ফিরবেন। সে দারুণ কৌশলী একজন  ক্রিকেটার ও অধিনায়ক। উঠতি দলগুলোর সাফল্যের জন্য একজন ভালো অধিনায়ক অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন