জুতা পায়ে প্রভাত ফেরি

অনলাইন

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি | ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার, ৬:৪৩
বরগুনার আমতলীতে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রভাতফেরিতে জুতা পায়ে অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও চাকরিজীবীরা। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে প্রভাত ফেরি শুরু হয়। ওই প্রভাতফেরিতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সামাজিক সংগঠনের লোকজন অংশগ্রহণ করেন। আমতলী বন্দর হোসাইনিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, আমতলী এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আমতলী একে হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ব্যবস্থাপকসহ বিভিন্ন চাকরিজীবীরা জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করে।
স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন বলেন, জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করায় শহীদদের অবমাননা করা হয়েছে। যারা জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করেছে, তাদের বিচার দাবি করছি। মানুষের মাঝে দেশপ্রেম হারিয়ে গেছে। নাহলে এরকম হওয়ার কথা নয়।আমতলী শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের ব্যাবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বখতিয়ার দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমি জানতাম না জুতা পায়ে প্রভাতফেরি করা যায় না।
এখন অনেকে জুতা পড়ে প্রভাতফেরিতে যায়, তাই আমিও গিয়েছি। আমতলী বন্দর হোসাইনিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইউনুছ হাওলাদার জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশ নেয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আমার ভুল হয়েছে। পরে জুতা খুলে ফেলেছি। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান বলেন, জুতা পায়ে যারা প্রভাতফেরিতে অংশগ্রহণ করেছে তারা প্রকৃত দেশপ্রেমিক না। তারা অন্যায় মন্তব্য করেছে, তাদের বিচার হওয়া উচিৎ।

আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, জুতা পায়ে যারা প্রভাত ফেরি করেছে, তারা অজ্ঞ। যদি তারা বুঝে করে থাকে, তবে শহীদদের অবমাননা করা হয়েছে। আর যদি না বুঝে করে থাকে তবে অজ্ঞতার পরিচয় দিয়েছে।
 



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Akbar Ali

২০১৮-০২-২২ ০৬:৫১:১১

বিষয়ের পক্ষে বিপক্ষে রেফারেন্সসহ বলুন, দেশবাসী উপকৃত হবে। অহেতুক ইস্যু সৃষ্টি করে ফকিহ্‌ সাজার ভান করবেন না। এমন আচরণে অংশ গ্রহণকারীগণের মনে নেতিবাচক মনোভাব গড়ে উঠে।

robiul

২০১৮-০২-২১ ১০:৫৬:৫৬

সারা বছর শহিদ মিনার জুতা দিয়ে পাড়ায় কোন অবমাননা হয়না। আরে কাবা শরীফে জুতা দিয়ে তাওয়াফ করে এতে কাবার সম্নান নষ্ট হয় না।

জয়

২০১৮-০২-২১ ২৩:২২:৫৯

আমরা শহিদেরকে স্মরণ করবো অন্তর থেকে -----জুতো পায়ে দিয়ে বা মাথায় নিয়ে নয় ----

Quazi Nasrullah

২০১৮-০২-২১ ২২:০৫:০৬

Absolute they commit wrong. but, when we see on-duty govt. people comes with uniform boot, we feel confused.... ... ...

আপনার মতামত দিন

বিক্রমসিংহর ক্ষমতা ফিরে পাওয়া সহজ করলো সুপ্রিম কোর্ট

চকরিয়ায় হাসিনা আহমেদের গণসংযোগে হামলা, গুলিবর্ষণ

সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পাল্টাপাল্টি মামলা

নরসিংদীতে বিএনপি প্রার্থীর গাড়িতে হামলা, আহত ৭

‘ভিন্নমতের কণ্ঠরোধের জন্যই আমাকে ধরা হয়েছিল’ (অডিও)

তরুণ ভোটারদের প্রধান টার্গেট করবে বিএনপি

মালিতে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ৪০

মাহবুব উদ্দিন খোকনের গাড়ি বহরে হামলা

গুগল টপ সার্চলিস্টে বাংলাদেশিদের মধ্যে শীর্ষে খালেদা জিয়া

নিরাপত্তার আবেদন নিয়ে ইসিতে হাফিজউদ্দিন

মনে হচ্ছে পুলিশ আমাদের প্রতিদ্বন্দী: আলাল

বিএনপি ও জামায়াতের ৩ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

বিএনপি প্রার্থী ফজলুল হক মিলন গ্রেপ্তার

আবার ব্রাসেলসমুখী তেরেসা মে

বাঁধার কারণে প্রচারণা চালাননি আফরোজা আব্বাস

পুলিশি অত্যাচারে আমার নেতাকর্মীরা মাঠে নামতে পারছে না: নীরব