তাফসির মাহফিলে বক্তাকে পিটুনি

প্রথম পাতা

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি | ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, সোমবার
আবু জেহেলের বংশধররা এখনো সক্রিয় আছে বলার অপরাধে তাফসিরুল কোরআন মাহফিলের প্রধান বক্তা মাওলানা আজিজুল হককে  বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে। সাঁথিয়া উপজেলার ধূলাউড়ি ইউনিয়নের বারআনি গ্রামের কেন্দ্রীয় কবরস্থানের উন্নয়নকল্পে সমাজ সেবক গোলাম মুর্শেদের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার রাতে বার্ষিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিলের আয়োজন করা হয়। প্রধান বক্তা ছিলেন সাতক্ষীরা থেকে আগত মাওলানা আজিজুল হক। তিনি মঞ্চে বক্তব্য দেয়ার একপর্যায়ে বলেন, এই মাহফিলটি এখন জান্নাতের বাগান। আমরা সবাই জান্নাতি।
পরক্ষণে বলেন, এখানে আবু জেহেলের বংশধররা আছেন। সঙ্গে সঙ্গে মঞ্চে থাকা বিশেষ অতিথি ধূলাউড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জরিপ আহম্মেদ মাস্টার প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, এখানে আবু জেহেলের কোনো বংশধর নেই। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা প্রধান বক্তাকে কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে মঞ্চ থেকে ফেলে দেন। বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত মুসল্লিরা জীবনের ভয়ে ছুটাছুটি শুরু করেন। মাহফিলের এক সদস্য বলেন, চেয়ারম্যান জরিফ মাস্টার এলাকায় যেকোনো জালসায় বক্তাদের কোন বিষয়ে ওয়াজ করা হবে জানিয়ে দেন। এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান জরিফ আহম্মেদ বলেন, মাওলানা আজিজুল হক উপজেলার ডেমড়া, বড়পাইকশাসহ একাধিক জায়গায় সরকারবিরোধী ওয়াজ করেছেন। বারআনি কবরস্থানের জলসায়ও তার বক্তব্য ব্যতিক্রম হয়নি। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আবু জেহেলের বংশধর বলে কটূক্তি করলে উপস্থিত নেতাকর্মী ও মুসল্লিরা তাকে মারপিট করেছে। মারপিটটা আল্লাহর তরফ থেকে হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Citizen

২০১৮-০২-১৯ ২২:০০:৫৬

Example of Religious freedom and freedom of speech!!!!

আপনার মতামত দিন