চট্টগ্রামে পুলিশকে গুলির পেছনে ‘কিশোর গ্যাং’, আটক ৩

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শনিবার, ৫:২৩
চট্টগ্রাম মহানগরীর ষোলশহর দুই নম্বর গেইটে রেলস্টেশন সড়কের মুখে তল্লাশি চৌকিতে পুলিশকে গুলির পেছনে জড়িত ‘কিশোর গ্যাং’। এই গ্যাংয়ের তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।
আজ শনিবার সকালে অভিযান চালিয়ে নগরীর মুরাদপুর এলাকা থেকে রাকিব ও প্রত্যয় নামে দু‘জনকে আটক করে। গতকাল বিকেলে গুলি করার সময় হাকিম নামে একজনকে পুলিশ ধরে ফেলে।
জিজ্ঞাসাবাদে হাকিমের দেয়া তথ্য মতে রাকিব ও প্রত্যয়কে আটক করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত আরও দু‘জনকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান চট্টগ্রাম নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আবদুল ওয়ারিশ।
তিনি বলেন, আটক তিনজনই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য। এরা নগরীর চান্দগাঁও থানার বহদ্দারহাট, মুরাদপুর ষোলশহর ও নাসিরাবাদের বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাইয়ে জড়িত। এদের বয়স ১৭ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে।
এদের মধ্যে রাকিব ও প্রত্যয় এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী।
আবদুল ওয়ারিশ বলেন, শুক্রবার বিকেলে নগরীর পাচলাইশ থানার এসআই নুরুল ইসলাম ও এএসআই আবদুল মালেক আরও তিন পুলিশ সদস্য নিয়ে ষোলশহর দুই নম্বর গেইটের রেলস্টেশন সড়ক মুখে তল্লাশি চৌকিতে নিয়মিত তল্লাশি কাজ শুরু করেন।
এ সময় একটি মোটরসাইকেলের নম্বর প্লেট পেপার দিয়ে মোড়ানো দেখে তাদের থামতে বলেন। এ সময় পেছনে থাকা আরও একটি মোটরসাইকেলে থাকা দুই আরোহির একজন অতর্কিতে পিস্তল বের করে গুলি করা শুরু করে। এতে এএসআই আব্দুল মালেক পায়ের হাটুর উপরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে ঢলে পড়েন।
পুলিশের এসআই নুরুল ইসলাম এ সময় পাল্টা গুলি করলেও মোটারসাইকেল আরোহীরা পালিয়ে যায়। তবে পেছন থেকে হাকিম নামে এক আরোহীকে জাপটে ধরে ফেলেন এসআই নুরুল ইসলাম। নুরুল ইসলাম জানান, দুটি মোটরসাইকেলে চার কিশোর আরোহী থাকলেও আরও ১০-১৫ জন কিশোর তখন ঘটনাস্থলে ছিল। যারা হাকিমকে ছাড়াতে ঝাপটাঝাপটিও করেছিল। তখন তারা এই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য কি না তা তাৎক্ষনিকভাবে মাথায় আসেনি।
তবে জিজ্ঞাসাবাদের পর হাকিম পাঁচ জন জড়িত থাকার কথা বললেও অন্য কারও জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেননি। তার দেওয়া তথ্যমতে, পুলিশ আজ শনিবার সকালে অভিযান চালিয়ে রাকিব ও প্রত্যয়কে নগরীর মুরাদপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। তবে পুলিশকে গুলি করা পিস্তলটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানান এসআই নুরুল ইসলাম। চট্টগ্রাম মহানগর পাঁচলাইশ থানার ওসি মহিউদ্দিন মাহমুদ জানান, আটক প্রত্যয় কাজেম আলী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন। তার বাসা নগরীর সুগন্ধা আবাসিক এলাকায়। রাকিব নাসিরাবাদ বয়েজ হাই স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন। তার বাসা নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটিতে।

[এফএম]



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Nixon pandit

২০১৮-০২-১৭ ০৪:৪০:৩৭

অস্ত্র পরিচালনার শিক্ষা ওরা নিশ্চয় কোথাও পেয়েছে ।ঐ শিক্ষককে ধরা খুবই জরুরি বলে আমি মনে করি ।

আপনার মতামত দিন

কংগ্রেস তিন রাজ্যে শক্তি ফিরে পেয়েছে

টাইম ম্যাগাজিনের পারসন অব দ্য ইয়ার একদল সাংবাদিক

ফেসবুক প্রধান কার্যালয়ে বোমা হামলার হুমকি

ফ্রান্সে বড়দিনের মার্কেটে গুলি, নিহত ৩

‘ডাবিং করতে গিয়ে বেশ ভয় পেয়েছিলাম’

নিজ আসন থেকেই প্রচার শুরু করছেন শেখ হাসিনা

নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আগ্রহী ৩৪,৬৭১ স্থানীয় পর্যবেক্ষক

উচ্চ আদালতে হাজারো জামিনপ্রার্থী, দুর্ভোগ

পরিস্থিতির উন্নতি না হলে নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন উঠবে

হাইকোর্টেও বিভক্ত আদেশ

সব দলকে অবাধ প্রচারের সুযোগ দিতে হবে

নোয়াখালী ও ফরিদপুরে নিহত ২

ভুলের খেসারত দিলো বাংলাদেশ

চার দলের প্রধান লড়ছেন যে আসনে

কোনো সংঘাতের ঘটনা ঘটেনি

সিলেটে মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু আজ