এক বছর নিষিদ্ধ, দুই লাখ টাকা জরিমানা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৩
আগেই বোঝা যাচ্ছিল বড় ধরনের  শাস্তির মুখে পড়তে যাচ্ছেন রহমতগঞ্জের কোচ কামাল বাবু। সেটাই হয়েছে কামাল বাবুকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাফুফের ডিসিপ্লিনারি কমিটি। পাশাপাশি দুই লাখ টাকার অর্থদণ্ডও দেয়া হয়েছে তাকে; যা আগামী ৩০ দিনের মধ্যে বাফুফে কোষাগারে জমা দিতে বলা হয়েছে। এর ফলে আগামী মৌসুমের বড় একটি সময়জুড়ে দর্শক হয়ে কাটাতে হবে এ কোচকে। শৃঙ্খলা বিধির ৫৩ ও ২২ ধারা অনুযায়ী কামাল বাবুর বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বাফুফে। শুরুতে তার ক্লাব রহমতগঞ্জকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছিল।  কিন্তু ক্লাবটির উত্তর সন্তোষজনক মনে হয়নি ডিসিপ্লিনারি কমিটির।
পরে কোচকেও কারণ দর্শাতে বলা হয়। তার জবাবের পরই ১৩ই ফেব্রুয়ারি বড় শাস্তির সিদ্ধান্ত নেয় এই কমিটি। বাফুফের এমন সিদ্ধান্ত শুনে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি কামাল বাবু। শুধু বলেছেন, ‘আমি এখনও বাফুফের কাছ থেকে কোনো চিঠি পাইনি। আগে চিঠি পাই তারপর এ বিষয়ে কথা বলবো’। তবে বাফুফে ডিসিপ্লিনারি কমিটির এই রায়ের বিপক্ষে আপিল করার সুযোগ পাবেন কামাল বাবু। উল্লেখ্য, ৬ই ফেব্রুয়ারি স্বাধীনতা দিবস ফুটবলে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে মাঠের ভেতরে ঢুকে রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন কামাল বাবু।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির থাকার সুযোগ নেই: কাদের

নিরাপদ বাংলাদেশের জন্য আপনারা এগিয়ে আসুনঃ ফখরুল

বাজপেয়ীর শেষকৃত্যে যোগ দেবেন পাকিস্তান ও নেপালের প্রতিনিধি

জিয়া পরিবারের দুষ্কর্মের মুখোশ উন্মোচন করা জরুরী: তথ্যমন্ত্রী

কলকাতায় বাংলাদেশি ও ভারতীয় পণ্যের স্থায়ী প্রদর্শন কেন্দ্র হচ্ছে

আন্দোলনের মুখে জাবির সান্ধ্যকালীন কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

ফেসবুকে অশ্লীল ছবি: চীন ফেরত স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

শিবির সন্দেহে শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে পুলিশে দিল ছাত্রলীগ

তিন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে নারী আটক

আত্মহত্যার আগে ফেসবুকে যা লিখেছেন ঢাবি শিক্ষার্থী মুশফিক

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চায় তুরস্ক

শহীদুল আলম: আত্মমর্যাদা ও মানবাধিকারের স্বপক্ষে একক কন্ঠস্বর

বিয়েতে বাবার অসম্মতি, যুবকের আত্মহত্যা

জেদ্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি পরিবারের ৪ সদস্য নিহত

‘এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না’