সাবিহাকে বাঁচাতে বাবার আকুতি

বাংলারজমিন

বগুড়া প্রতিনিধি | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার
ডাক্তার সময় দিয়েছেন মাত্র ১৫ দিন। টাকা লাগবে মাত্র দুই লাখ। এতেই বেঁচে যেতে পারে ছোট্ট শিশু সাবিহা। কোটি মানুষের কাছে এই টাকার পরিমাণ অতি নগণ্য হলেও গরিব পিতা আবদুস সালামের কাছে এই টাকা জোগাড় করা কঠিন। সংগত কারণেই মানুষের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন তিনি। ছোট্ট শিশু সাবিহা বয়স মাত্র তিন বছর।
শিশুটি জানে না তার হার্ট ফুটো হয়ে গেছে। জন্ম থেকেই ঠবহঃৎরপঁষধৎ ঝবঢ়ঃধষ উবভবপঃ (ঠঝউ) নামক হৃদরোগ নিয়ে বেড়ে উঠছিল সে। গত বছরের অক্টোবর। বাবা তাকে নিয়ে প্রথমে বগুড়ায় হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হয়। তারপর ডাক্তার তার বাবাকে জানান তার মেয়ে জন্মগতভাবেই হৃদরোগে আক্রান্ত। তারপর মেয়ের উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনমজুর বাবা সিরাজগঞ্জের খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই শিশু সাবিহার চিকিৎসা চলছে। সাবিহার ওপেনহার্ট সার্জারি করতে পারলেই সে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন মেডিকেলের প্রফেসর ডা. লুৎফর রহমান। ডাক্তার বলেছেন, এজন্য বেশি দিন সময় হাতে নেই। ১৫ দিনের মধ্যে তার সার্জারি করতে হবে। এই সময়ের মধ্যে অপারেশন না করলে আর কিছুই করার থাকবে না। বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া তালুকদারপাড়া গ্রামের কাগজ মিলের শ্রমিক আব্দুস সালামের মেয়ে সাবিহা জানে না অপারেশনটা করতে না পারলে সে আর পৃথিবীর আলো দেখতে পারবে না। এ পর্যন্ত দরিদ্র বাবা তার চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকার মতো খরচ করেছেন। কিন্তু তার ওপেন হার্ট সার্জারি করতে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা লাগবে। আর ওষুধপথ্যসহ আনুষঙ্গিক খরচ মিলিয়ে যার পরিমাণ দাঁড়াবে ২ লাখের মতো; যা তার গরিব বাবার পক্ষে যোগাড় করা সম্ভব নয়। তাই তিনি মেয়ের চিকিৎসার জন্য দেশের বিত্তবান মানুষের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন। আগ্রহীরা সাহায্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ০১৭১৭৮৫২৬৮২ নম্বরে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘ভারতে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশের নেপথ্যে চীন সমর্থনপুষ্ট পাকিস্তান’

বাংলাদেশ-চীন সম্পর্ক নিয়ে ভারতের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই

দ্বিতীয় ধাপে আইনি লড়াই, জামিন প্রশ্নে ফয়সালার অপেক্ষা

নেশার ভয়ঙ্কর জগতে শিশুরাও

মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে নিতে দ্ব্যর্থহীন সমর্থন দিন

অনিশ্চয়তা প্রভাব ফেলছে অর্থনীতির ওপর

শনিবার কালো পতাকা মিছিল বিএনপি’র

জুয়ার আসরে উড়ছে কোটি টাকা

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ

কেন মানুষ মাজারে যায়?

শহীদমিনারের স্রোত গ্রন্থমেলায়

শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

চাটখিলে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

চূড়ান্ত বিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে আজ

'বন্দুক যুদ্ধে' শিশু ধষর্ণ মামলার আসামি নিহত

জুতা পায়ে প্রভাত ফেরি