২% কম শেয়ার রাখা পরিচালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত

দেশ বিদেশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত যেসব কোম্পানির পরিচালকের কাছে (স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত) পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশের কম শেয়ার রয়েছে তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিক অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। গতকাল বিএসইসির ৬২৯তম কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১১ সালের ২২শে নভেম্বর বিএসইসির প্রজ্ঞাপন নং এসইসি/সিএমআরআরসিডি/২০০৯/১১৯/এডমিন/৩৪ মোতাবেক স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানিসমূহের স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত সকল পরিচালকের জন্য সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশ শেয়ার ধারণ বাধ্যতামূলক। কাজেই স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানিসমূহের স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত যেসব পরিচালক কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশ শেয়ার ধারণ না করে কোম্পানির পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিষয়টি এনফোর্সমেন্ট বিভাগে প্রেরণের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে। এ ছাড়া উপরোক্ত প্রজ্ঞাপনের বিধান মোতাবেক যেসব কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকগণ সম্মিলিতভাবে সর্বদা পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ করতে ব্যর্থ হয়েছে সেসব কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকদের শেয়ার ধারণ নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে একটি নির্দেশনা জারির সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।
এদিকে গতকাল একই সভায় বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অর্থ উত্তোলনে অনুমোদন পেয়েছে আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড। অনুষ্ঠিত বিএসইসি সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়। কোম্পানিটি বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে ইলেক্ট্রনিক বিডিংয়ের মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রির পাশাপাশি কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণ করছে।
কাট-অফ প্রাইস তথা যে দামে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত কোটার শেয়ার বিক্রি শেষে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি করার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয়। বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে বিডিং শেষ হওয়া আমান কটন ফাইবার্সের শেয়ারের কাট-অফ প্রাইস নির্ধারিত হয়েছিল ৪০ টাকা। সেই দামের ১০ শতাংশ কমে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ৩৬ টাকা দরে শেয়ার কিনতে পারবেন। সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি করতেই কমিশন এই দাম অনুমোদন করেছে। কোম্পানিটি আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ৮০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের অভিহিত মূল্য হবে ১০ টাকা। ৩০শে জুন ২০১৬ সমাপ্ত হিসাব বছরের কোম্পানিটির স্থায়ী সম্পদের পুনর্মূল্যায়নসহ নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩৫ টাকা ৬৩ পয়সা। আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড সুতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। কোম্পানিটি কটন, পলিস্টার, সিল্কসহ অন্য ফাইবার উৎপাদন করে।
এদিকে এসইবিএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে বিএসইসি। ফান্ডটির অভিহিত মূল্য ১০ টাকা।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার বহিষ্কার হচ্ছেন বি চৌধুরী!

ইসির বৈঠকে কূটনীতিকদের উদ্বেগ আসছেন ইইউ’র দুই বিশেষজ্ঞ

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা

তিনদিনে ডিজিটাল আইনে ১৬ মামলার আবেদন

সিলেটে সমাবেশের অনুমতি মিলেনি

জনমতের প্রকৃত প্রতিফলন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আওয়ামী লীগ মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ চায় না

মহানবীর রওজা জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি

আওয়ামী লীগে স্বস্তি বিএনপিতে টানাপড়েন

আঞ্জু জানেন না স্বামী বেঁচে নেই

শেষ কলামেও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা লিখেছেন খাসোগি

সিলেটে চেয়ারম্যানপুত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

ঢাকায় আকবরের নেটওয়ার্ক

এমপি রানার জামিন নামঞ্জুর

এরশাদের দিকে তাকিয়ে নেতাকর্মীরা