স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও প্রেমিকের ফাঁসি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার
গাজীপুরের টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় পরকীয়া সম্পর্কের জের ধরে স্বামী আব্দুল হান্নান হত্যা মামলায় স্ত্রী ও তার সহযোগীর ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। একই সাথে দণ্ডপ্রাপ্তদেরকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে গাজীপুর অতিরিক্ত দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন এ রায় প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- নিহত আব্দুল হান্নানের স্ত্রী ও সিরাজগঞ্জের একডালা গ্রামের মোজাহার আলী মাস্টারের মেয়ে নাজমা বেগম ও ঝিনাইদহ জেলার সোনাতনপুর গ্রামের আব্দুল বারেজ বিশ্বাসের ছেলে মান্নান হোসাইন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, নিহত হান্নান ও তার স্ত্রী নাজমা বেগমকে নিয়ে টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় মোসলেম উদ্দিনের বাড়ির ২য় তলায় ভাড়ায় বসবাস করতেন।
একই তলায় আসামি মান্নান হোসাইনও বসবাস করতেন। একই বাসায় বসবাস ও যাতায়াতের সুবাদে মান্নান হোসাইনের সঙ্গে আব্দুল হান্নানের স্ত্রী নাজমা বেগমের অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানাজানি হলে হান্নান তার স্ত্রীকে এ নিয়ে সতর্ক করেন এবং মান্নানকে বাসা ছেড়ে দিতে বলেন। এরই জের ধরে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১২ সালের ২৭শে জানুয়ারি রাতে নাজমা বেগম ও মান্নান হোসাইন পরস্পর যোগসাজসে আব্দুল হান্নানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।
স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী জেলে
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের ছাতক পৌর শহরে বসত ঘরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে দায়ের করার মামলায় স্বামী আবুল মনসুর লিটনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। সুনামগঞ্জের আমলগ্রহণকারী ছাতক আদালতের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শহীদুল আমিন সোমবার ওই ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, ছাতক পৌর শহরের দক্ষিণ বাগবাড়ি এলাকায় আবুল মনসুরের বসত বাড়িতে গত বছরের ৬ই মে রাত সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা হিন্দুদের ওপর গণহত্যা চালিয়েছে’

তসলিমা নাসরিনের দেহ দানের অঙ্গীকার

বন্দুকযুদ্ধে আরও ৮ জন নিহত

টানা বৃষ্টিতে রাজধানীতে চরম দুর্ভোগ

‘আমি সব সময় নিজেকে নতুনভাবে উপস্থাপন করতে চাই’

মুক্তামনিকে আর বাঁচানো গেল না

চীনে ‘অক্ষম’ পুরুষের সংখ্যা ১৪ কোটি

স্বাস্থ্যসেবায় ভারতকে পিছনে ফেলেছে বাংলাদেশ

ফিলিস্তিনের পক্ষে কেন সোচ্চার শিখ তরুণরা?

সৌদিতে যৌন নির্যাতন: পালিয়ে বাঁচা বাংলাদেশি নারীদের মুখে নিপীড়নের বর্ণনা

দুই মেয়াদে নির্বাচন প্রসঙ্গ আছে ১৬তম সংশোধনীর রায়েও

ট্রাম্প প্রশাসনের রাডারে ঢাকার মার্কিন নীতি

খালেদার জামিন আবেদনের শুনানি শুরু

‘বন্দুকযুদ্ধ’ চলছেই

খুলনা ‘শান্তিপূর্ণ কারচুপির’ নির্বাচনের নতুন মডেল

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অসঙ্গতি দূর করার আশ্বাস