বিবেককে বিকিয়ে দেবে না: প্রেসিডেন্ট

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, রোববার, ৭:৪৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৩
চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, অন্যায় ও অসত্যের কাছে মাথা নত না করবে না। বিবেককে বিকিয়ে দেবে না। মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনা, দেশপ্রেমই হতে হবে চলার পথের পাথেয়। আজ রোববার বিকেলে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, শিক্ষাজীবন শেষ করার পর বাস্তব জীবনের আসল সংগ্রাম এখন শুরু। আর এ সনদ সেই সংগ্রামে অবতীর্ণ হবার স্বীকৃতিপত্র।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭টি অনুষদ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করা ৮৪৪ জন, স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করা ২১৬ জন এবং ২ জন পিএইচডি স¤পন্ন করা শিক্ষার্থী আচার্যের কাছ থেকে সনদ গ্রহণ করেন।
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রেসিডেন্ট বলেন, দেশে ভেটেরিনারি চিকিৎসা সম্প্রসারণে ঢাকায় একটি অত্যাধুনিক রিসার্চ এন্ড পেট এনিম্যাল হাসপাতাল গড়ে তোলা হচ্ছে। সেখানে শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপের পাশাপাশি দক্ষ কমসর্ংস্থানের সম্ভাবনা বৃদ্ধিপাবে।
প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদের কৃষিতে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। অপরিকল্পিতভাবে রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার মৎস্য ও প্রাণিস¤পদের উপরও বিরূপ প্রভাব ফেলছে। জলবায়ূ পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় গবেষক ও বিজ্ঞানীদের নতুন নতুন জাত ও পদ্ধতি আবিস্কারে বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। বঙ্গোপসাগরে ১ লক্ষ ১৮ হাজার ৮১৩ বর্গকিলোমিটার জলসীমা জয় করেছে বাংলাদেশ। গবেষণার মধ্য দিয়ে সেখানকার মৎস্য সম্পদের উন্নয়নে এই বিশ্ববিদ্যালয়কে ভূমিকা রাখতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশের জন্য ছাত্র-শিক্ষকের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের উপর জোর দিতে হবে। শিক্ষকদের হতে হবে  স্নেহ প্রবণ ও অভিভাবকতুল্য। প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, বাংলাদেশ আজ সম্ভাবনার এক উজ্জ্বল সময় অতিক্রম করছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে তরুণদের সুশিক্ষিত ও দক্ষ মানব সম্পদে রূপান্তরিত করার গুরু দায়িত্ব পালন করতে হবে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া সমাবর্তন অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান এবং সমাবর্তন বক্তা হিসেবে প্রফেসর ইমেরিটাস এ কে আজাদ চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Alam

২০১৮-০২-১১ ০৮:৫৬:৩২

Sir I want to ask you the same question ? Are you doing so?

আপনার মতামত দিন

'বন্দুক যুদ্ধে' শিশু ধষর্ণ মামলার আসামি নিহত

জুতা পায়ে প্রভাত ফেরি

‘একুশের পথ ধরে স্বাধীনতা অর্জন হয়েছে’

শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুল ছাত্রীর যৌন নীপিড়নের অভিযোগ

চাঞ্চল্যকর টুকু হত্যার আসামী ৫ বছর পর গ্রেপ্তার

ভণ্ড পীরের কাণ্ড, ছাত্র বলাৎকার

২৪শে ফেব্রুয়ারি কালো পতাকা মিছিল করবে বিএনপি

শাকিব-অপুর সংসারের ইতি ঘটছে আগামীকাল

নওয়াজ শরীফ পরিবারের আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে আদালত

লরির যন্ত্রাংশ চুরি-পাচার, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী সহ আটক ৫

আগের রাত থেকেই পশ্চিমবঙ্গে ভাষা দিবস পালিত

দুর্নীতি: পাকিস্তানের সাবেক চার শীর্ষ সেনা কর্মকর্তার মামলা চালু হচ্ছে আবার

অক্সফামের বিরুদ্ধে নতুন ২৬ যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগ

রেলখাতের উন্নয়নে ৩৬ কোটি ডলার দেবে এডিবি

নির্বাচন প্রশ্নে জাতীয় ঐক্যের আহ্বান বিএনপির

ইমরান খান অবিশ্বস্ত