পশ্চিমবঙ্গে নব্য জেএমবির আরও তিন জঙ্গি গ্রেপ্তার

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার
পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশের নব্য জেএমবির আরও তিন ভারতীয়কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই নিয়ে গত এক সপ্তাহে মোট ৬ জন নব্য জেএমবি সদস্যকে কলকাতা পুলিশের এসটিএফ গ্রেপ্তার করেছে। গত সোমবার ফারাক্কা থেকে এবং শামসেরগঞ্জ থেকে তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফারাক্কা থেকে ধরা হয়েছে মহম্মদ আলি নামে এক জঙ্গিকে। সেই দিনই শামসেরগঞ্জের রতনপুর থেকে ধরা হয়েছে আজার হোসেন ও রুবেল শেখকে। এর আগে এসটিএফ পয়গম্বর শেখ, জমিউল শেক ও শিম মহম্মদ নামে তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে।
পয়গম্বর পুলিশকে জেরায় স্বীকার করেছে যে, গত ১৯ জানুয়ারি বুদ্ধগয়ায় দালাই লামার সফরের সময় যে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল তাতে পশ্চিমবঙ্গে বেশ কয়েকজন যুক্ত ছিল। কলকাতা পুলিশের এসটিএফ প্রধান মুরলিধর শর্মা জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গে নব্য জেএমবির ৮-৯টি মডিউলের সন্ধান পাওয়া গেছে। প্রতিটি  মডিউলের সঙ্গে ১০-১২ জন করে সদস্য রযেছে। পুলিশ এই সব মউিলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করার অভিযান চালাচ্ছে। ইতিমধ্যেই মুর্শিদাবাদের কয়েকটি জায়গা থেকে প্রচুর পরিমাণ বিস্ফোরক পুলিশ উদ্ধার করেছে। মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘি থানার নয়াগ্রাম থেকে আইইডি তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে নয়াগ্রামের দু’টি বাড়ি থেকেও প্রচুর পরিমাণ ডেটোনেটর উদ্ধার করা হয়েছে। এদিনের অভিযানে এনআইএও অংশ নিয়েছিল। সম্প্রতি ভারতের এক গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়েছিল, বাংলাদেশের ঢাকার হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার যে অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছিল তা তৈরি হয়েছিল পশ্চিমবঙ্গেরই মালদহ জেলায়। পাশাপাশি, আইএসআইএস জঙ্গি সন্দেহে ধৃত বীরভূমের এক যুবকের সঙ্গেও বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠনগুলির নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। বিগত কয়েক বছর ধরেই এই রাজ্যের বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় জঙ্গিদের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রশাসনের একটি অংশ স্বীকার করেছে যে, পর্যাপ্ত নজরদারির অভাবেই জেএমবির জঙ্গিরা নতুন সংগঠনের আড়ালে সংগঠিত হচ্ছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আজ

রায়ের কপি এখনো মেলেনি

আগাম নির্বাচনের কথা ভেসে বেড়াচ্ছে

৭ই মার্চ বড় জমায়েত করতে চায় আওয়ামী লীগ

গণস্বাক্ষরের মাধ্যমে গণসংযোগে বিএনপি

যুক্তরাজ্যের কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

চীন-ভারত দ্বন্দ্বে পুঁজিবাজারে অস্থিরতা

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের আগে আরসা দমন করতে চায় মিয়ানমার

জনতার হাতে আটক সেই খুনি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

শেষ বেলায়ও লজ্জা

শাবি শিক্ষার্থীকে অর্ধনগ্ন করে রাতভর নির্যাতন

জামিনকে আটকে রাখতে ফন্দি-ফিকির করছে সরকার: রিজভী

কলম্বোতে মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের যৌথ প্রস্তুতি

‘অপরিচিত পুরুষের সাথে যখন ফেসবুকে পরিচয় হলো’

পুঁজিবাজার ও আর্থিক খাতের বিপর্যয়ে অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবী