সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় পাকিস্তান

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, রোববার
নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সবচেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ায় লজ্জা পেলো পাকিস্তান। গতকাল ডানেডিনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ৭৪ রানে গুঁড়িয়ে যায় তারা। কিউইদের মাঠে এটাই পাকিস্তানের সর্বনিম্ন রানে অলআউট হওয়ার রেকর্ড। আর ওয়ানডে ইতিহাসে পাকিস্তানের এটা তৃতীয় দলীয় সর্বনিম্ন রান। এর আগে ১৯৯৩ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৩ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। পরে একই দলের বিপক্ষে ৭১ রানে গুড়িয়ে যাওয়ার রেকর্ডে নাম লেখায় তারা।
ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বনিম্ন ৩৫ রানে অলআউট হওয়ার রেকর্ড রয়েছে জিম্বাবুয়ের। ২০০৪-এ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এ লজ্জার কীর্তি গড়ে জিম্বাবুয়ে।
এদিন ট্রেন্ট বোল্টের দুর্ধর্ষ বোলিং  নৈপুণ্যে পাকিস্তানকে ১৮৩ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় নিউজিল্যান্ড। এতে ৫ ম্যাচের সিরিজ জয় নিশ্চিত করে নিলো তারা। এ নিয়ে ঘরের মাঠে টানা ৭ ওয়ানডে সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব দেখালো কিউইরা। অন্যদিকে এ হারের মধ্য দিয়ে নিউজিল্যান্ডের মাঠে টানা ৩ সিরিজ হারের লজ্জায় ডুবলো পাকিস্তান।
কিউইদের দেয়া ২৫৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে মাত্র ২ রানের মাথায় ৩ উইকেট খোয়ায় পাকিস্তান। একপর্যায়ে ৩২ রানে ৮ উইকেট হারালে ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বনিম্ন রানের লজ্জার মুখে পড়ে পাকিস্তান। নবম উইকেটে সরফরাজ ও আমির ২০ রান আর শেষ উইকেটে সরফরাজ ও রুম্মন ২২ রান যোগ করলে ২৭.৭ ওভারে ৭৪ রানে অলআউট হয় পাকরা। তাদের ৫০ রান পূর্ণ হয় ২৩.৫ ওভারে। এ ম্যাচে পাকিস্তানের ৪ ব্যাটসম্যান দু’অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে সক্ষম হন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ১৬ রান করেন শেষ ব্যাটসম্যান রুম্মন রইস। তিনজন আউট হন শূন্য রানে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ১৭ রানে সর্বোচ্চ ৫ উইকেট নেন পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। এছাড়া কলিন মানরো ও লোকি ফার্গুসন ২টি করে উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন পেসার বোল্ট।
টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ২৫৭ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। সর্বোচ্চ ৭৩ রান করেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ১০১ বল খেলেন তিনি তার এই ৩৩তম অর্ধশতক করার পথে। এছাড়া রস টেইলর ৬৪ বলে ৫২ ও ওপেনার মার্টিন গাপটিল ৬২ বলে ৪৫ রানের ইনিংস খেলেন। পাকিস্তানের হয়ে দুই পেসার রুম্মন রইস ও হাসান আলী ৩টি করে উইকেট নেয়। মঙ্গলবার হ্যামিল্টনে চতুর্থ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দু’দল।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন