অপমানিত বোধ করছেন মরিনহো

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, রোববার
চেলসি কোচ অ্যান্তনিও কন্তের সঙ্গে বাদানুবাদে অপমানিত বোধ করছেন বলে জানিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ হোসে মরিনহো। কন্তে এবং মরিনহোর মধ্যকার কথার লড়াই চলছে অনেকদিন ধরেই। ২০১৬-এর অক্টোবর থেকেই দুজনের কথার লড়াই শুরু। সেটা চলছে এখনো। গত সপ্তাহ থেকে এ লড়াই আরো চাঙা হয়ে উঠে। সংবাদ সম্মেলনে পরস্পরকে অপমান করার মতো কথা বলেই যাচ্ছেন এ দুজন।
পরস্পরের অতীত নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন উভয়ই। শেষপর্যন্ত গত বৃহস্পতিবার কন্তে বলেন, প্রতিপক্ষের (মরিনহো) সঙ্গে এ বিবাদ তিনি কখনো ভুলবেন না। এর জবাবে গত শুক্রবার মরিনহো বলেন, “আমার মনে হয়, যখন একজন ব্যক্তি আরেকজনকে অপমান করে, তখন হয় আপনি জবাব পাবেন অথবা সে ব্যক্তি চুপ থেকে বিষয়টা অবজ্ঞা করবে। প্রথমবার যখন সে আমাকে অপমান করে তখন আমি এর জবাব দিয়েছিলাম। কিন্তু দ্বিতীয়বার সে অপমান করলো। এবার আমি নিজের আচরণ পাল্টে চুপ থেকে কাহিনীর সমাপ্তি টানলাম।”

দুজনের কথার লড়াইয়ের নমুনা
*৪ঠা জানুয়ারি: মরিনহো বলেন যে, কন্তের ভাঁড়ামির প্রয়োজনীয়তা সে অনুভব করতে পারছেন না।
* ৫ই জানুয়ারি: কিভাবে ব্যবহার করতে হয় মরিনহোর এটা মনে রাখা উচিত বলে মন্তব্য করেন কন্তে।
* ৫ই জানুয়ারি: মরিনহো বলেন যে, তিনি কখনো কোনো ম্যাচে নিষিদ্ধ হবেন না। (এটা কন্তেকেই উদ্দেশ্য করে বলেছেন। কিন্তু মরিনহো কন্তের নাম উচ্চারণ করেননি। ২০১২-১৩তে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে চার মাসের নিষেধাজ্ঞা পান কন্তে)
* ৬ই জানুয়ারি: মরিনহোকে “লিটল ম্যান” বলেন কন্তে।
* ৯ই জানুয়ারি: কন্তে বলেন, মরিনহো আক্রমণাত্মক শব্দ ব্যবহার করে। এ বিবাদ ভুলে যাবে না বলেও মরিনহোকে সতর্ক করেন কন্তে।
কন্তে-মরিনহোর কথার লড়াইয়ের ইতিহাস
* ২৩শে অক্টোবর ২০১৬: মরিনহোকে উদ্দেশ্য করে কন্তে বলেন, সে কারো বিদ্রূপ করে না।
* ১২ই ফেব্রুয়ারি ২০১৭: মরিনহো বলেন, চেলসি রক্ষণাত্মক দল, এজন্য তাদের হারানো কষ্ট। এর জবাবে কন্তে বলেন, তিনি মরিনহোর ভাঁড়ামি পছন্দ করেন না।
* ১৪ই মার্চ ২০১৭: এফ এ কাপে ম্যানইউ হেরে যাওয়ার পর মরিনহো চেলসির সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, তিনি (মরিনহো) এখনো বিশ্বের সেরা।
* ২৯শে জুলাই ২০১৭: কন্তে বলেন, তিনি মরিনহো ছাড়া প্রিমিয়ার লীগে একটি মৌসুম চান।
* ১৯শে অক্টোবর ২০১৭: কন্তে মরিনহোকে উদ্দেশ্য করে বলেন, তার নিজের দিকে তাকানো উচিত।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন