রূপগঞ্জে লোকালয়ে ইটভাটা হুমকিতে জনস্বাস্থ্য

বাংলারজমিন

জয়নাল আবেদীন জয়, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) থেকে | ১২ জানুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার
রূপগঞ্জে শিল্প-কারখানাসংলগ্ন জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ইটভাটা স্থাপনের কারণে জনস্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়েছে। আইনের তোয়াক্কা না করে ইটভাটার মালিক পেশিশক্তির বলে লোকালয়ে ইটভাটা গড়ে তুলেছেন। শুধু তাই নয় ভাটার অনেক জমি জোরপূর্বক দখলে নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে ইটভাটাটি। এসব ব্যাপারে কেউ কথা বললেই হয়রানি করা হচ্ছে মিথ্যা মামলায়। ইটভাটা বন্ধে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় আর পরিবেশ অধিদপ্তরের শরণাপন্ন হয়েছেন এলাকার কয়েক হাজার ভুক্তভোগী। উপজেলার সাওঘাট এলাকার ইসলাম ব্রাদার্স ইটের ভাটায় পাওয়া গেছে এমন চিত্র।
জানা গেছে, পরিবেশ আইনের তোয়াক্কা না করে উপজেলার জনবসতিপূর্ণ সাওঘাট এলাকায় ইসলাম ব্রাদার্স নামে একটি ইটভাটা তৈরি করেছেন এলাকার ভূমিদস্যু ও মামলাবাজ হিসেবে খ্যাত শের আলী মিয়া।
ভাটার উভয় পাশে বেশ কয়েকটি গার্মেন্টসহ শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। যেখানে কয়েক হাজার লোক কর্মরত। এছাড়া রয়েছে জনবসতি। ভাটার পাশ দিয়েই চলে গেছে রূপগঞ্জ-আড়াইহাজার সড়কও। সংশ্লিষ্ট এলাকার ইটভাটাটি শের আলী কেবল পেশিশক্তির জোরে গড়ে তুলেছেন। এই ভাটা গড়ে তোলার জন্য এলাকার রফিকুল ইসলাম মীর, সুরেশ চন্দ্র, নরেন্দ্র, যোগেন্দ্রসহ আরো অনেকের জমি জোরপূর্বক ভাটার দখলে নিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে প্রতিবাদ করায় উল্টো তাদের চাঁদাবাজির মামলায় হয়রানি করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তারা। লোকালয়ে ইটভাটাটি স্থাপনের কারণে ওখানকার জনস্বাস্থ্যও হুমকির মুখে পড়েছে। এলাকার শিশু-কিশোর-বয়স্ক লোকজন ও পোশাক কারখানার শ্রমিকরা সর্দি-কাশি, শ্বাসকষ্ট, হাঁপানিসহ নানান জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ্য করা হয়। ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) আইন-২০০১ এর ১৭ নম্বর ধারায় ইটভাটার লাইসেন্স প্রদানের ক্ষমতা জেলা প্রশাসকের। তিনি ইটভাটা পরিদর্শন করবেন বা তার সম-মর্যাদার যেকোনো কর্মকর্তা পরিদর্শন করবেন। ইট পোড়ানো আইনের ধারা ৪৬৫ এর উপধারায় বলা আছে আবাসিক এলাকা, উপজেলা সদর, ফলের বাগান, বনাঞ্চল, লোকালয় ও জনবসতিপূর্ণ এলাকার তিন কিলোমিটারের মধ্যে ইটভাটা স্থাপন করা যাবে না। সর্বোচ্চ দেড় একর জমিতে নদী খালের ধারে ইটভাটা স্থাপন করার নিয়ম থাকলেও তার কোনোটিই মানা হয়নি ইসলাম ব্রাদার্স ইটভাটায়।
এ ব্যাপারে ভাটার মালিক শের আলীর সঙ্গে তার সেলফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বাংলাদেশের কোনো ইটভাটা আইন মেনে গড়ে তোলা হয়নি। আর আমি কোনো অবৈধ কাজ করছি না। যারা জমি দখলের অভিযোগ তুলেছে সেসব জমি মালিকদের সঙ্গে আমার মামলা চলছে। মামলা নিষ্পত্তি হলেই বোঝা যাবে আমি জমি দখল করেছি কি না।
রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বলেন, এমন জনবসতিপূর্ণ এলাকায় একটি ইটের ভাটা গড়ে তোলা হয়েছে সেটা আমার জানা ছিল না। আমি দুয়েকদিনের ভিতর সরেজমিন গিয়ে তদন্ত করার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আইভীকে হাসপাতালে দেখে আসলেন ওবায়দুল

তিস্তা কূটনীতিতে চোখ ঢাকার

শাহজালালে বৈদেশিক মুদ্রাসহ দুই যাত্রী আটক

দারুণ শুরু বাংলাদেশের

ভারতের সুপ্রিম কোর্টে ফেলানী হত্যার রিট শুনানি ফের পেছালো

যশোরে বিএনপি নেতা অমিতের বক্তব্যে তোলপাড়

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু

‘বিষয়টি নিয়ে আমি বেশ উত্তেজিত’

পাঁচ দশকের দীর্ঘ লড়াই

ভিডিও দেখে অস্ত্রধারীদের খোঁজা হচ্ছে

‘অতিষ্ঠ হয়ে প্রেমিককে ছুরিকাঘাত’

ফল প্রকাশের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, অবরোধ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সময় লাগবে ৯ বছর!

মত প্রকাশের স্বাধীনতা সীমিত, আক্রমণের শিকার নাগরিক সমাজ

মেয়র আইভী হাসপাতালে

জিয়াউর রহমানের ৮২ তম জন্মবার্ষিকী আজ